৩.৫জি সাধারণ প্রশ্নোত্তর

উত্তর: অক্টোবর ২০১৩ থেকে রবি গ্রাহকগণ ৩.৫জি সেবা পাচ্ছেন।

উত্তর: রবি ৩.৫জি হচ্ছে তৃতীয় প্রজনমের মোবাইল যোগাযোগ ব্যবস্থা। এই প্রযুক্তির সাহায্যে গ্রাহক ২জি প্রযুক্তির চেয়ে ৩ গুণেরও বেশি গতিতে ইন্টারনেট চালাতে পারবেন।

আপনার ৩জি ফোন/ডিভাইস থেকে আপনি ৩.৫জি প্রযুক্তি ব্যবহার করতে পারবেন, এবং ভিডিও কল করতে পারবেন, টিভি দেখতে পারবেন, উচ্চগতির ইন্টারনেট সুবিধা পাবেন, এবং সরাসরি সম্প্রচার দেখতে পারবেন, যেটা আগে সম্ভব হয়নি।

উত্তর: রবি ৩.৫জি প্রযুক্তি হচ্ছে ৩জি প্রযুক্তির একটি উন্নত ভার্সন। এটি গ্রাহককে ২১ এমবিপিএস গতিতে ইন্টারনেট ব্যাবহারের সুযোগ দিচ্ছে। ৩জি তে এই গতি ছিল ৩৮৪ কেবিপিএস। এই অঞ্চলে গড় ডাটা ডাউনলোড গতি হচ্ছে ১-৩ এমবিপিএস।

উত্তর: ক. সংযোগের ডিভাইস (হ্যান্ডসেট/ট্যাবলেট/ইউএসবি মোডেম)
খ. গ্রাহকের অবস্থান/নেটওয়ার্ক কভারেজ।
গ. দিনের সময়
ঘ. একই অবস্থানে একই সঙ্গে ব্যবহারকারীর সংখ্যা।
ঙ. ব্যবহারকারীর ওয়েব সার্ভিস/ ওয়েবসাইটের ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ

৩.৫জি ৩জি-এর তুলনায় বেশী ডাটা থ্রুপুট প্রদান করে। গ্রাহকরা এর দ্বারা আরও ভাল অভিজ্ঞতা লাভ করবেন। ২.৫জি বলতে সাধারণত এজ এর সাথে সম্পর্কিত ওয়্যারলেস প্রযুক্তি ও ক্ষমতাকে বোঝায়। ওয়্যারলেসের দ্বিতীয় জেনারেশন অথবা ২জি লেভেল সাধারণত গ্লোবাল সিস্টেম ফর মোবাইল (জিএসএম) সেবা হিসাবে পরিচিত, এবং তৃতীয় জেনারেশন অথবা ৩জি লেভেল সাধারণত ইউনিভার্সাল মোবাইল টেলিকমিউনিকেশন সার্ভিস (ইউএমটিএস) সেবা হিসাবে পরিচিত। প্রত্যেক জেনারেশন দিচ্ছে আরও বেশী ডাটা রেট এবং পূর্ববর্তী জেনারেশন থেকে বাড়তি সক্ষমতা। রবি ৩.৫জি প্রযুক্তির মাধ্যমে গ্রাহকরা পাবেন ২১ এমবিপিএস ক্ষমতা সম্পন্ন ডাটা ব্যান্ডউইথ।

উত্তর: রবি ৩.৫জি সেবায় গ্রাহক যা যা পাবেন:
ক. সুপার হাই স্পীডে ওয়েব ব্রাউজিং
খ. অব্যাহতভাবে সরাসরি মিউজিক শোনা এবং ভিডিও দেখা
গ. দ্রুত গতিতে বড় আকারের ফাইল ডাউনলোড
ঘ. আগের চেয়ে বেশি ইন্ট্যারাক্টিভ এইচডি গেম
ঙ. ৩জি ফোন থেকে যে কোন স্থান থেকে আপনার পরিবার ও বন্ধুদের সাথে কথা বলা
চ. ৩জি ফোনে সরাসরি ক্রিকেট/ফুটবল ম্যাচ দেখা

রবি ধীরে ধীরে সারা বাংলাদেশে ৩.৫জি সেবা চালু করবে। যখনই কোন এলাকা, শহর বা জেলা রবির কভারেজের আওতায় আসবে, তখনই আমাদের ওয়েবসাইটের এবং মাঠ কার্যক্রমের মাধ্যমে জানানো হবে।

না, আপনার বর্তমান সিম কার্ড বেশ ভালোভাবেই কাজ করবে যদি আপনার একটি ৩জি উপযুক্ত ফোন থাকে এবং আপনি রবি ৩জি নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত থাকেন।

চূড়ান্ত পণ্যের পরিকল্পনা এবং মূল্য সেটা চালু হবার সময় জানানো হবে।

হ্যাঁ।

বেশীরভাগ হ্যান্ডসেটে ব্যবহারযোগ্যতা ইঙ্গিত করতে ৩জি আইকন “3G” অথবা “H” দেখানো হবে। যখন আপনি ৩জি কভারেজের বাইরে চলে আসবেন, আইকনটি তখন “E” অথবা “G”-তে পরিবর্তিত হবে এবং আপনি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ২জি নেটওয়ার্কের আওতাধীন হবেন। আপনার ফোন ২জি এবং ৩জি নেটওয়ার্কের মাঝে চলাফেরার সময়ও কাজ করবে।

প্রথমত, আপনাকে ৩.৫জি সেবার জন্য সাবস্ক্রাইব করতে হবে। দ্বিতীয়ত, আপনার মোবাইল হ্যান্ডসেটের নেটওয়ার্ক সেটিংস্‌ থেকে ৩জি নেটওয়ার্ক নির্বাচন করতে হবে।

যখন আপনি “E” দেখবেন, তখন আপনি ২জি নেটওয়ার্কের আওতায়, এবং যখন আপনি “3G”/”H” অথবা “3.5G” দেখবেন তখন আপনি ৩জি নেটওয়ার্কের আওতায়।

আপনাকে আপনার হ্যান্ডসেটের নেটওয়ার্ক/ডাটা সেটিং ৩জি অথবা ডব্লিউসিডিএমএ-তে পরিবর্তন করতে হবে (হ্যান্ডসেট মডেলের উপর নির্ভর করবে)।

সেবার মান স্পেকট্রামের মাপের সাথে সম্পর্কিত নয়; সুতরাং রবি ৩.৫জি নেটওয়ার্কে গ্রাহকরা উপভোগ করবেন দারুন এক অভিজ্ঞতা।

আপনি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ২জি নেটওয়ার্কের আওতায় চলে যাবেন।

রোমিং এর সময় আপনি ৩জি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করতে পারবেন।

যদি সেটা ৩জি সক্রিয় ডিভাইস হয়, তবে আপনি নিরবিচ্ছিন্ন ৩.৫জি সেবা উপভোগ করতে পারবেন।

যখন আপনি কোনো ৩জি নেটওয়ার্কের এলাকায় থাকবেন, তখন আপনার হ্যান্ডসেটের নেটওয়ার্ক সিগনাল বারের উপর “3G” অথবা “H” দেখাবে, যার মানে আপনার ফোন ৩জি ব্যবহারযোগ্য, এবং তখন আপনি এই সেবাটি ব্যবহার করতে পারবেন। আপনাকে অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে আপনার ফোন সেটিং ‘শুধু ২জি’ এ সেট করা নেই। এছাড়াও আপনি আপনার হ্যান্ডসেট প্রস্তুতকারকের ওয়েবসাইট দেখতে পারেন।

আপনাকে শুধু স্কাইপ ডাউনলোড এবং ইন্সটল করতে হবে, তাহলেই আপনি পারবেন।

আপনার হ্যান্ডসেটে রবি ৩.৫জি সেবা ব্যবহার শুরু করার ব্যাপারে আরও জানতে অনুগ্রহ করে আমাদের ওয়েবসাইটের ৩.৫জি প্যাকেজ পেইজটি ভিজিট করুন।

হ্যাঁ, পারবেন। আপনাকে শুধু আপনার রবি নম্বর থেকে রবির কল সেন্টারে (১২৩) কল করতে হবে।

এটা সেটা চালু করার সময় জানানো হবে।

নতুন গ্রাহকদের রবি ৩.৫জি সেবা ব্যবহার করার জন্য একটি নতুন রবি সংযোগ কিনতে হবে।

৩জি ব্যবহারের চার্জ অন্যান্য ফোন চার্জের সাথে একত্রে একই বিলের অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

হ্যাঁ, আপনি একটি ৩জি ফোনকে মডেম হিসাবে আপনার ল্যাপটপের সাথে সংযুক্ত করে হাই স্পীডে ইন্টারনেট ব্রাউজ করতে পারবেন। এছাড়াও আপনি ৩জি ইউএসবি মডেম ব্যবহার করতে পারবেন।

৩জি এর জন্য কোনো বিশেষ সেটিংস্‌ এর প্রয়োজন নেই। শুধুমাত্র নিশ্চিত করুন যে, ৩.৫জি সেবা চালু হবার পরে আপনি রবি ৩জি নেটওয়ার্কে আছেন।

ভিডিও কল করার জন্য আপনার একটি ভিডিও কল সমর্থিত হ্যান্ডসেট লাগবে।

ভিডিও কলের ক্ষেত্রে কোনো ডাটা খরচ হবে না। ভিডিও কল ৩জি ভয়েস চ্যানেল ব্যবহার করে এবং আপনাকে প্রতি মিনিটের জন্য ট্যারিফ প্ল্যান অনুসারে চার্জ করা হবে।

হাঁ, এটি সম্ভব এবং যখন সেবাটি প্রাপ্য তখন যোগাযোগ করা হবে।

অনুগ্রহ করে নিশ্চিত করুন যে আপনি যাকে কল করছেন, তারও যেন একটি ৩জি হ্যান্ডসেট থাকে এবং তিনি যেন ৩জি নেটওয়ার্ক কভারেজের আওতায় থাকেন।

হাঁ।

 

বিস্তারিত জানতে চাইলে ক্লিক করুন।: FAQ

subscriber email