পুরষ্কার এবং স্বীকৃতি

২০২২ সালের পুরস্কারের তালিকাঃ

রবি’র সবচেয়ে জনপ্রিয় ইসলামিক লাইফস্টাইল অ্যাপ নূর অ্যাপ, বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ড ২০২২-এ অন্তর্ভুক্তি এবং কমিউনিটি সার্ভিসেস (এইচসি-আইসিএস) বিভাগে স্বীকৃতি পেয়েছে।

রবি আজিয়াটা লিমিটেডের এয়ারটেল ব্র্যান্ড লন্ডনের গ্লোবাল ক্যারিয়ার অ্যাওয়ার্ডস ২০২২-এ স্বীকৃতি পেয়েছে। এয়ারটেল ব্র্যান্ডের ‘#airteleidchallenge’ ক্যাম্পেইনটি সারা বিশ্ব থেকে ২৮৩ প্রতিযোগীর সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ‘সেরা সোশ্যাল মিডিয়া ক্যাম্পেইন’-এর পুরস্কার জিতেছে। গ্লোবাল ক্যারিয়ার অ্যাওয়ার্ড হলো সবচেয়ে বিখ্যাত হোলসেল টেলিকম এবং কানেক্টিভিটি অ্যাওয়ার্ড প্রোগ্রামগুলোর একটি।

“বিডিঅ্যাপ্স" বাংলাদেশ ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড ২০২২-এ কমিউনিটি এনগেজমেন্টে সেরা উদ্ভাবন হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছে রবি।

"এশিয়ার সেরা এমপ্লয়্যার ব্র্যান্ড ২০২২" পুরস্কার পেয়েছে রবি। দ্বিতীয়বারের মতো রবি এই পুরস্কারে ভূষিত হলো।

আইসিএমএবি বেস্ট কর্পোরেট অ্যাওয়ার্ড-২০২১-এ টেলিকমিউনিকেশন অ্যান্ড আইটি ক্যাটাগরির অধীনে "সিলভার অ্যাওয়ার্ড" জিতেছে রবি। ২০২২ সালের ডিসেম্বরে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

কমিউনিকেশন অ্যান্ড আইটি ক্যাটাগরিতে বেস্ট প্রেজেন্টেড অ্যানুয়াল রিপোর্ট ২০২১-এর জন্য ২২তম আইসিএবি ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড-এ প্রথম স্থান অর্জন করেছে রবি। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানটি ডিসেম্বর ২০২২-এ অনুষ্ঠিত হয়।

সাউথ এশিয়ান ফেডারেশন অফ অ্যাকাউন্ট্যান্টস (সাফা)-তে বেস্ট প্রেজেন্টেড অ্যানুয়াল রিপোর্টস অ্যাওয়ার্ড ২০২১-এর জন্য "ব্রোঞ্জ অ্যাওয়ার্ড" জিতেছে রবি। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানটি ডিসেম্বর, ২০২২ সালে নেপালে অনুষ্ঠিত হয়।

টিভি মিডিয়া বিভাগে বেস্ট ইউজ-এর জন্য কমওয়ার্ডস ২০২২-এ সিলভার পুরস্কার জিতেছে রবি’র ডিজিটাল হেলথ প্ল্যাটফর্ম, হেলথ প্লাস। কমওয়ার্ড হলো বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম (বিবিএফ) লোকাল ক্রিয়েটিভ এজেন্সিগুলোর কাজকে স্বীকৃতি ও পুরস্কৃত করার একটি উদ্যোগ।

রবি আজিয়াটা লিমিটেডের এয়ারটেল ব্র্যান্ড কমওয়ার্ডস ২০২২-এ বিজয় দিবস ক্যাম্পেইন বিভাগে গ্রাঁ প্রিঁ পুরস্কার জিতেছে। কমওয়ার্ড হলো বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম (বিবিএফ) লোকাল ক্রিয়েটিভ এজেন্সিগুলোর কাজকে স্বীকৃতি ও পুরস্কৃত করার একটি উদ্যোগ।

রবি’র ওটিটি প্ল্যাটফর্ম বিঞ্জ-এর টিকটক বিঞ্জ স্টার ক্যাম্পেইন, কমওয়ার্ডস ২০২২-এ ব্রোঞ্জ পুরস্কার জিতেছে। কমওয়ার্ড হলো বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম (বিবিএফ) লোকাল ক্রিয়েটিভ এজেন্সিগুলোর কাজকে স্বীকৃতি ও পুরস্কৃত করার একটি উদ্যোগ।

কোভিড-১৯ মোকাবেলায় উদ্ধাবনী ভূমিকার জন্য কমিউনিকএশিয়া পুরষ্কার পেল রবি

কোভিড-১৯ মহামারী চলাকালে উদ্ভাবনী উপায়ে ভোক্তা এবং এন্টারপ্রাইজ গ্রাহকদের সেবা প্রদানের স্বীকৃতি হিসেবে সম্প্রতি আন্তর্জাতিক পুরষ্কারে ভূষিত হয়েছে রবি।

কোভিড-১৯ ক্যাটাগরিতে টেলিযোগাযোগ সেবায় উদ্ভাবনী পদক্ষেপ নেয়ায় সিঙ্গাপুর-ভিত্তিক কমিউনিকএশিয়া ২০২০ পুরষ্কার পেয়েছে রবি, যা ডিজিটাল উদ্ভাবনে রবি’র অগ্রণী ভূমিকারই প্রতিফলন।

দেশে কোভিড-১৯ মহামারী আঘাত হানার শুরু থেকেই রবি দৃঢ় মানসিকতার সাথে এই পরিস্থিতিকে মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত হয়েছিল। গ্রাহকদের মহামারী থেকে রক্ষা করতে বেশ কয়েকটি উদ্ভাবনী উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলো কোম্পানিটি।

নির্ভরযোগ্য ডিজিটাল হেলথ কেয়ার পণ্য, যেমন: হেলথ-প্লাস এবং লাইফপ্লাস দিয়ে রবি জনসাধারণের জন্য মহামারী চলাকালীন স্বাস্থ্যসেবা আরও সহজলভ্য ও সাশ্রয়ী করার চেষ্টা করেছে। উবার মডেলের সাথে সামঞ্জস্য রেখে অনন্য মোবাইল-ভিত্তিক স্বাস্থ্যসেবা মডেল এবং একটি বিশেষ কোভিড বীমা প্যাকেজ বাজারে এনেছে কোম্পানিটি।

রবির প্রিমিয়ার অনলাইন টিকেটিং প্ল্যাটফর্ম- বিডিটিকেটস বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ‘কোভিড ট্র্যাভেল ইন্স্যুরেন্স’ চালু করে যা করোনা মহামারীর ফলে বিধ্বস্ত পরিবহণ শিল্পের জন্য একটি তাৎপর্যপূর্ণ উদ্যোগ হিসেবে কাজ করছে।

ডিজিটাল অ্যাগ্রো বান্ডেলের সহায়তায় ওভার-দ্য টপ (ওটিটি) যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম- কৃষিভাই অ্যাপের মাধ্যমে কৃষকদের মধ্যে পাপস্পরিক যোগাযোগ নিশ্চিত করেছে রবি। অল্টারনেট ক্রেডিট স্কোরিং’র সহায়তায় ফোন লোন ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে চলমান ডিজিটাল বৈষম্য হ্রাস করার উদ্যোগ নিয়েছে অপারেটরটি।

এছাড়া উইম্যান-লিডারশিপ ও রিটেইলার-ফিন্যান্সিং উদ্যোগের মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়নে ভূমিকা রাখা এবং মহামারীর ফলে দুর্ভোগে পড়া হাজার হাজার খুচরা বিক্রেতাকে ব্যবসা ধরে রাখতে সহায়তা করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক পুরস্কার জয়ের ক্ষেত্রে এসব উদ্ভাবনী উদ্যোগ অনন্য ভূমিকা রেখেছে।

টেলিযোগাযোগ শিল্পের সাফল্য ও অসামাস্য অবদানকে স্বীকৃতি দিয়েছে কমিউনিক এশিয়া ২০২০ অ্যাওয়ার্ডস। ফাইভজি প্রযুক্তির জন্য প্রস্তুত হচ্ছে এই অঞ্চল; সেই দিকটির দিকে নজর রেখে পরবর্তী প্রজন্মের নেটওয়ার্ক গড়ে তুলতে অর্জিত সাফল্যকে উদযাপন করাই কমিউনিক এশিয়া অ্যাওয়ার্ডস’র উদ্দেশ্য।


রবি বিশ্বের সেরা সামাজিকভাবে নিবেদিত ব্র্যান্ড হিসাবে স্বীকৃত

রবি আজিয়াটা লিমিটেড আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন অনলাইন অ্যানালিটিক্স কোম্পানি কর্তৃক ২০২০ সালে টানা দুই কোয়ার্টারে বিশ্বের সেরা সামাজিকভাবে নিবেদিত ব্র্যান্ড হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছে। তিনটি মানদণ্ডের বিপরীতে স্কোরের উপর ভিত্তি করে র‍্যাংকিং করা হয়; ক্রাইটেরিয়া ৩টি হল- সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ফ্যান ও ফলোয়ারদের সংখ্যা, প্রতিক্রিয়া জানানোর সময় এবং রেসপন্স রেট।

সোশ্যালব্যাকার্সের বিশ্লেষণ অনুসারে, রবি ১১ মিলিয়নেরও বেশি ফ্যান, ফলোয়ার নিয়ে তালিকার শীর্ষে রয়েছে, প্রতিক্রিয়া জানানোর গড় সময় ৬ মিনিট এবং এই বছরের প্রথম প্রান্তিকে ৯৯.৭৫% রেসপন্স রেট। রবি দ্বিতীয় কোয়ার্টারে ১১ মিলিয়নেরও বেশি ফ্যান নিয়ে গড়ে ৫ মিনিটের রেসপন্স টাইম এবং ৯৯.৮৪% এর দারুণ রেসপন্স রেট এর সাথে আরো উন্নতি করে। এর মানে রবির সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে গ্রাহকদের করা প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর তারা যতটা সম্ভব দ্রুত সময়ের মধ্যে দিয়েছে।

গ্রাহককেন্দ্রিক কোম্পানি হিসাবে, রবি তার গ্রাহক ও ফ্যানদের পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত রিসোর্সের মাধ্যমে সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ২৪/৭ সঠিক, রিয়েল-টাইম এবং আকর্ষণীয় প্রতিক্রিয়া সরবরাহ করার চেষ্টা করে। অনলাইন রেসপন্স রেট এর নিয়মিত বেঞ্চমার্কিং এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার, টুলস্‌ ও টেকনিক রবিকে সোশ্যালব্যাকার্সের গ্লোবাল তালিকায় ধারাবাহিকভাবে শীর্ষে স্থান দিয়েছে।


রবি -টেন মিনিট স্কুল আন্তর্জাতিক শিক্ষা পুরস্কার জিতেছে

দেশের বৃহত্তম ডিজিটাল স্কুল রবি -টেন মিনিট স্কুল (www.robi10minuteschool.com) "বছরের সেরা ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্ম" হওয়ার জন্য সম্মানজনক আন্তর্জাতিক শিক্ষা পুরস্কার (আইইএ) পেয়েছে। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে ভারতের গোয়ায় অনুষ্ঠিত আইইএ শীর্ষ সম্মেলনে এই পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল।

বিনা মূল্যে দেশের প্রতিটি যুবকের কাছে মানসম্পন্ন ডিজিটাল শিক্ষাগত সামগ্রী সরবরাহ করার ক্ষেত্রে অসাধারণ অবদান রাখায় রবি -টেন মিনিট স্কুলকে যথাযথ স্বীকৃতি হিসেবে "২০১৯ এর সেরা ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্ম" পুরস্কারটি দেয়া হয় ।

ডিজিটাল বিদ্যালয়ের সর্বব্যাপী প্রকৃতি, শিক্ষার্থীদের মানসম্পন্ন শিক্ষায় প্রবেশের ভৌগলিক প্রতিবন্ধকতা সরিয়ে দেশের যেকোনো জায়গা থেকে এটিকে অ্যাক্সেসযোগ্য করে তুলেছে।

আইইএ আন্তর্জাতিক শিক্ষা সম্মেলন, যা বিশ্বব্যাপী শিক্ষা সম্প্রদায়ের প্রতি তাদের অবদানের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষাগতদের স্বীকৃতি দেয়।


গভইনসাইডার ৩৩৩ কে এশিয়ার সেরা নাগরিক প্রবৃত্তি প্রকল্প হিসাবে স্বীকৃতি দিয়েছে

৩৩৩ - জনসাধারণের সেবা গ্রহণের পদ্ধতি এবং সামাজিক সমস্যা সমাধানের পদ্ধতি সম্পর্কিত তথ্য সরবরাহকারী জাতীয় কল সেন্টারটি, সরকারী সেক্টরে উদ্ভাবনের প্রচারকারী একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা গভইনসাইডার কর্তৃক এশিয়ার সেরা নাগরিক সংযোগ প্রকল্প হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছে।

৩৩৩-এর ই-সার্ভিস বিশেষজ্ঞ এবং উপ-সচিব মোহাম্মদ আশরাফুল আমিন ২০১৯ সালে থাইল্যান্ডের ইউনাইটেড নেশনস কনফারেন্স সেন্টারে, ব্যাংককের থাইল্যান্ডে আয়োজিত গ্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে গবইনসাইডারের কাছ থেকে এই পুরষ্কার পেয়েছিলেন। ৩৩৩, এক্সেস টু ইনফরমেশন (এ 2 আই), রবি আজিয়াটা লিমিটেড এবং জেনেক্স ইনফোসিস এর একটি যৌথ উদ্যোগ ।

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ থেকে যাত্রা শুরু করে ৩৩৩ নম্বরটি ৩৪ লাখ কল রিসিভ করেছে, ১২,০০০ টিরও বেশি সামাজিক সমস্যা সমাধান করেছে এবং স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় সারা দেশে ৩,০০০ এরও বেশি বাল্য বিবাহ বন্ধ করেছে। এছাড়াও, প্ল্যাটফর্মটি স্থানীয় প্রশাসনের সাথে নাগরিকদের দেশ জুড়ে অনেক সামাজিক অব্যবস্থাপনা মোকাবেলার জন্য সংযুক্ত করেছে।

৩৩৩ এর ফলে দেশে জনসেবা বিতরণ ব্যবস্থার উন্নতি করতে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে। এটি ডিজিটাল বাংলাদেশের ভিশন বাস্তবায়নের দিকে দেশের গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপের আরেকটি বড় সাফল্যের গল্প।

সেরা নাগরিক সংযোগ প্রকল্পের পুরষ্কার এমন একটি প্রকল্পকে স্বীকৃতি দেয় যা নাগরিকদের জড়িত করে এবং এটি কীভাবে বিশাল সংখ্যক জনগণের মধ্যে ছড়িয়ে পরেছে তার মেট্রিক্স উপস্থাপন করে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে সমাজের সকল বিভাগে জনসাধারণের সার্ভিস গ্রহণের জন্য মূল্যবান তথ্য প্রদান করে এবং ক্ষতিগ্রস্ত নাগরিকদের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে সমাজে প্রভাব তৈরি করার জন্য উদ্ভাবনী টুলস্‌ ব্যবহার করে।

গভইনসাইডারের কাছ থেকে এশিয়ার সেরা নাগরিক সংযোগ প্রকল্পের পুরষ্কার ছাড়াও, ২০১৯ সালে স্থায়ী অন্তর্ভুক্তি এবং কমিউনিটি সার্ভিস ক্যাটাগরিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য ৩৩৩ জাতীয় আইসিটি পুরষ্কারও পেয়েছে।


রবি -টেন মিনিট স্কুল সামাজিক উদ্ভাবন পুরস্কার জিতেছে

বাংলাদেশ ইনোভেশন কনক্লেভ (বিআইসি) দেশের বৃহত্তম ডিজিটাল স্কুল, রবি -টেন মিনিট স্কুলকে সোশ্যাল ইনোভেশন পুরস্কার ২০১৯ প্রদান করেছে। লে মেরিডিয়নে বাংলাদেশ ইনোভেশন কনক্লেভ আয়োজিত বাংলাদেশ বিজনেস ইনোভেশন সামিট ২০১৯ সালে রবি -টেন মিনিট স্কুল টিমের হাতে এই পুরস্কারটি হস্তান্তর করা হয়।

ফেসবুক এবং ইউটিউবে লাইভ ক্লাসের মাধ্যমে সারাদেশে শিক্ষার্থীদের জন্য মানসম্পন্ন শিক্ষা সামগ্রী পৌঁছে দেয়ার ক্ষেত্রে ডিজিটাল স্কুলের অসাধারণ অবদানের স্বীকৃতি হিসাবে রবি -টেন মিনিট স্কুল পুরষ্কারটি পেয়েছে। এই লাইভ ক্লাসগুলি প্রতিদিন ৭ টা থেকে ৭ টা এবং রাত ৯ টা থেকে ১০ টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। লাইভ ক্লাসের বিষয়গুলি পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত, জীববিজ্ঞান, বাংলা, ইংরেজি, সাধারণ জ্ঞান, অ্যাকাউন্টিং, ফিনান্স এবং একাডেমিক জীবনে সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য বিভিন্ন টিপস এবং কৌশল সহ বিস্তৃত বিষয় অন্তর্ভুক্ত করে থাকে।

গড়ে ৫,০০০ জনেরও বেশি শিক্ষার্থী এই লাইভ ক্লাসে যোগ দেয়। জুলাই, ২০১৬ সালে লাইভ ক্লাসের সূচনা হওয়ার পরে, ক্লাসগুলো থেকে ১ কোটিরও বেশি শিক্ষার্থী উপকৃত হয়েছে। এছাড়াও লাইভ ক্লাসের শিক্ষাগত কন্টেন্ট এ পর্যন্ত ৩০ মিলিয়নেরও বেশি বার দেখা হয়েছে। এই বছর, রবি -টেন মিনিট স্কুল সারা দেশে শিক্ষার্থী যারা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির প্রস্তুতি নিচ্ছে তাদের জন্য লাইভ ক্লাস সরবরাহের জন্য দুই মাস দীর্ঘ একটি বিশেষ প্রকল্প হাতে নিয়েছে।


ডেইলি স্টার রবি -টেন মিনিট স্কুলকে আইসিটি অ্যাওয়ার্ডস ২০১৯ প্রদান করেছে

দেশের শীর্ষ অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম রবি -টেন মিনিট স্কুল ডেইলি স্টার অ্যাকার্ড আইসিটি অ্যাওয়ার্ডস ২০১৯, আইসিটি স্টার্ট-আপ অফ দ্য ইয়ার পুরষ্কার জিতেছে। প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী আইসিটি হিরোদের এবং নির্বাচিত কোম্পানিগুলোর হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

আইসিটি বিভাগ অনুসারে, আইসিটি খাত থেকে বাংলাদেশের রপ্তানি আয় প্রায় ১ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে, যা ১,৫০০ টিরও বেশি সংস্থার এবং ৪০ টি অফশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে। ২০২১ সাল নাগাদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার দৃষ্টিভঙ্গি স্থাপনের সময় ২০০৯ সাল থেকে এই খাতটি ব্যাপক উন্নতি করেছে।


রবি এবং এয়ারটেল কে "সামাজিকভাবে নিবেদিত ব্র্যান্ড" হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে সোশ্যালব্যাকার্স


দেশের শীর্ষস্থানীয় ডিজিটাল সার্ভিস প্রদানকারী ব্র্যান্ড রবি এবং এয়ারটেল, রবি আজিয়াটা লিমিটেডকে বিশ্বব্যাপী খ্যাতিমান অনলাইন অ্যানালিটিক্স সংস্থা সোশ্যালব্যাকার্স থেকে ২০১৮ সালের চতুর্থ কোয়ার্টারে সবচেয়ে "সামাজিকভাবে নিবেদিত ব্র্যান্ড" হিসেবে স্বীকৃতি এনে দিয়েছে।

সোশ্যালব্যাকার্স গ্রাহকদের প্রশ্নের ১০০% রেসপন্স রেট অর্জনের জন্য রবি এবং এয়ারটেল উভয়ের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজটি সার্টিফাই করেছে। এর মানে রবির সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে গ্রাহকদের করা প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর তারা যতটা সম্ভব দ্রুত সময়ের মধ্যে দিয়েছেন।। রবি আজিয়াটা লিমিটেড এবং এয়ারটেল বাজ ফেসবুক পেইজ উভয়ই বাংলাদেশের টেলিকম ইন্ডাস্ট্রিতে সর্বনিম্ন রেসপন্স টাইম অর্জন করেছে।


ওকলা টেস্ট প্রকাশ করেছে ঢাকায় সেরা ডাউনলোড স্পিড দিচ্ছে রবি


ঢাকা অঞ্চলে সেরা ডাউনলোডের গতি অর্জনের জন্য দেশের বৃহত্তম ৪.৫ জি নেটওয়ার্ক সরবরাহকারী রবি ইন্টারনেট টেস্টিং, ডেটা এবং বিশ্লেষণে গ্লোবাল লিডার ওকলা কর্তৃক স্বীকৃতি পেয়েছে। ওকলার কিউ ৩ ২০১৮ স্পিডেস্ট ইন্টেলিজেন্স মানে ডাউনলোড স্পিড ডেটা অনুযায়ী রবি ধারাবাহিকভাবে ঢাকা বিভাগের প্রতিযোগীদের তুলনায় ক্রমাগত সেরা ডাউনলোডের স্পিড সরবরাহ করে চলেছে।

রবি দেশের ৬৪ টি জেলায় 4.5G চালু করে ইতিহাস সৃষ্টি করে, ২০১৮ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি তারা এই সার্ভিসটি চালু করেছিল। ৭,৩০০ টিরও বেশি 4.5 জি সাইট সহ দেশের প্রায় ৯৯% থানায় নেটওয়ার্ক প্রসারিত করে দ্রুত বিকশিত ডিজিটাল ল্যান্ডস্কেপটিতে রবি তার স্পিড বজায় রেখেছে। দেশে একমাত্র অপারেটর হিসেবে রবি সফলভাবে পরীক্ষামূলক ৫ জি সার্ভিস ট্র্যায়াল পরিচালনা করে, ডিজিটাল সেক্টরে রবির আধিপত্য অনিবার্য।


রবি -টেব মিনিট স্কুল পঞ্চম ডিজিটাল মার্কেটিং সম্মেলনে তিনটি পুরষ্কার পেয়েছে


দেশের বৃহত্তম অনলাইন স্কুল, রবি -টেন মিনিট স্কুল (www.robi10minuteschool.com) ২০১৮ সালে বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম আয়োজিত পঞ্চম ডিজিটাল মার্কেটিং সম্মেলনে তিনটি পুরষ্কার পেয়েছে। এই বছরের শীর্ষ সম্মেলনের মূল বিষয় ছিল "ডেলভিং ডিপ ইনটু ডিজিটাল"।

ডিজিটাল শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম শিখি ও শিখাই প্রচারণার জন্য সেরা ব্যবহারকারী উত্পাদিত কন্টেন্টে গ্র্যান্ড প্রিক্স পুরষ্কার জিতেছে (ফেসবুকে শিক্ষার্থীদের নোট শেয়ার করা), বাংলাদেশের বৃহত্তম শিক্ষার্থী কমিউনিটি থাকার জন্য ফেসবুকের সেরা ব্যবহার বিভাগে স্বর্ণ পুরষ্কার এবং রবি- টেন মিনিট স্কুলের লাইভ, ক্র্যাশ কোর্স এবং মাস্টারক্লাস প্রোগ্রামের জন্য কন্টেন্ট মার্কেটিং বিভাগে জিতে নেয় আরো একটি স্বর্ণ পুরষ্কার ।


বাংলাদেশ ইনোভেশন পুরস্কার ২০১৮ তে চলবে রবি অ্যাপটি সম্মানজনক ভাবে উল্লিখিত হয়েছে


রবি'র ডিজিটাল রিচার্জ প্ল্যাটফর্ম, চলবে রবি, বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম আয়োজিত বাংলাদেশ ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড ২০১৮ তে "পুনরায় উদ্ভাবনের মাস্টার" বিভাগে সম্মানজনক ভাবে উল্লিখিত হয়েছিল।

চলবে রবি একটি সামাজিক উদ্যোক্তা অ্যাপ্লিকেশন, যেখানে কোন গ্রাহক তার স্মার্টফোন থেকে যে কোনও রবি/এয়ারটেল গ্রাহকের পক্ষে রিচার্জ করতে পারবেন। অ্যাপ্লিকেশনটির অনন্য প্রস্তাবটি হ'ল প্রতিবার কোন চলবে রবি ব্যবহারকারী যে কোনও অবস্থান থেকে অনলাইন পেমেন্ট/এমএফএস/ডেবিট কার্ড ব্যবহার করে তার অ্যাকাউন্টে তহবিল যোগ করলে, তার ওয়ালেটে একটি কমিশন যুক্ত হবে। এটি সমাজে সামাজিক উদ্যোগের সুযোগ তৈরিতে সহায়তা করে। বর্তমানে, চলবে রবি উভয় প্লেস্টোরে ও অ্যাপ স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যাচ্ছে।


রবিকে আইএসও ৯০০১ প্রদান করা হয়েছে: ২০১৫ কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সার্টিফিকেশন


রবি আন্তর্জাতিক মানের আইএসও সার্টিফিকেশন সংস্থা ইন্টারটিেক বাংলাদেশ কর্তৃক ২০১৮ সালে কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের উপর আন্তর্জাতিক মান শংসাপত্র আইএসও ৯০০১: ২০১৫ গ্রহণ করে। বাংলাদেশের প্রথম টেলিকম সংস্থা হিসেবে এই সম্মানজনক সার্টিফিকেট অর্জন করে নেয় রবি।

ইন্টারটেক বাংলাদেশ, কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর, সন্দীপ দাস রবি'র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাহতাব উদ্দিন আহমেদের কাছে সম্প্রতি ঢাকার গুলশানের রবি কর্পোরেট অফিসে আইএসও ৯০০১: ২০১৫ সার্টিফিকেট হস্তান্তর করেছেন।

এই প্রত্যাশিত সার্টিফিকেটটি গ্রাহকদের মাঝে সত্যতা অর্জন করে যে রবি সফলভাবে একটি মান নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা প্রয়োগ করেছে যাতে সমস্ত প্রক্রিয়া এবং পদ্ধতিগুলি আন্তর্জাতিক মান অনুসারে যত্ন সহকারে ডিজাইন করা হয়েছে এবং গুণমান পরীক্ষা করা হয়েছে। রবি গত ১০ বছর ধরে ধারাবাহিকভাবে এই মানটি বজায় রেখে চলেছে।

আইএসও ৯০০১ মান পরিচালন ব্যবস্থার জন্য বিশ্বের সর্বাধিক স্বীকৃত মানদণ্ড। মানটি সংস্থাগুলোকে পণ্য ও পরিষেবা সরবরাহ এবং তাদের ক্রমাগত উন্নতির ক্ষেত্রে ধারাবাহিকভাবে গ্রাহক এবং অন্যান্য মূল অংশীদারদের চাহিদা মেটাতে সহায়তা করে।


রবি এবং এয়ারটেল ৮ম কমওয়ার্ডে ১৩ টি পুরষ্কার জিতেছে

রবি এবং এয়ারটেল-রবি আজিয়াটা লিমিটেডের দুই ব্র্যান্ড, কান ব্র্যান্ড ফোরাম ক্যান্স লায়ন্স ইন্টারন্যাশনাল ফেস্টিভাল অফ ক্রিয়েটিভিটি’র অ্যাসোসিয়েশনে বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম আয়োজিত ৮ম কমওয়ার্ডে ১৩ টি পুরষ্কারের সাথে স্বীকৃত হয়েছে।

বাজারে শীর্ষস্থানীয় ব্র্যান্ডের সাথে প্রতিযোগিতা করে রবির তিনটি প্রচারণা বিজয় ইতিহাশ, ট্রান্সজেন্ডার সামাজিক সচেতনতা এবং রবি -টেন মিনিট স্কুল এইচএসসি ক্রাশ কোর্স তিনটি গ্র্যান্ড প্রিকস (সর্বোচ্চ স্বীকৃতি), ছয়টি স্বর্ণ এবং একটি রৌপ্য পুরষ্কার জিতেছে। সেই সাথে, এয়ারটেল সংগীত/জিংগেল এবং নেটিভ বিভাগে আঞ্চলিক নেটওয়ার্ক প্রচারের জন্য দুটি স্বর্ণ পুরস্কার এবং ডিজিটাল বিভাগে মুহুর্তের মার্কেটীং এর জন্য একটি রৌপ্য পুরষ্কার জিতেছে।

বিজয় ইতিহাস ক্যাম্পেইনটি ডিসেম্বর ২০১৭ সালে চালু হয়েছিল; ক্যাম্পেইনটি একটি ইনোভেটিভ ডিজিটাল সল্যুশন প্রবর্তন করে আমাদের দেশের মুক্তিযুদ্ধের গৌরবময় ইতিহাস তরুণ প্রজন্মকে অবহিত করার চেষ্টা করেছিল। টাকার নোটের ব্যাপক প্রাপ্যতা বিবেচনা করে রবি, ১৯৫২ থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত আমাদের গৌরবময় যাত্রার মূল ঐতিহাসিক মুহুর্তগুলি দুই টাকা থেকে ৫০০ টাকার নোটের মধ্যে একীভূত করার চেষ্টা করে।

রবি সেরা ক্যাম্পেইন ও মোবাইল বিভাগে দুটি গ্র্যান্ড প্রিক্স এবং ডিজিটাল, নেটিভ, ফিল্ম ক্রাফ্ট এবং ইনোভা বিভাগে পাঁচটি স্বর্ণ পুরষ্কার জিতেছে।

রবি তার তৈরি ট্রান্সজেন্ডার সোশ্যাল এক্সপেরিমেন্ট ভিডিওটির জন্য হারমোনি এবং সোশ্যাল ক্যাম্পেইন বিভাগে একটি গ্র্যান্ড প্রিক্স এবং একটি রৌপ্য পদক জিতে। ভিডিওটির অনন্য মানবিক আবেদন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ভাইরাল হয়েছিল।

রবি -টেন মিনিট স্কুল এইচএসসি ক্র্যাশ কোর্স প্রচারণার জন্য মোবাইল ক্যাম্পেইন বিভাগে একটি স্বর্ণ পদক জিতেছে। দেশব্যাপী শিক্ষার্থীদের জন্য মানসম্পন্ন ডিজিটাল শিক্ষা বিষয়ক কন্টেন্টের উত্স হিসেবে বৃহত্তম অনলাইন স্কুল, রবি -টেন মিনিট স্কুল এই পুরষ্কারের মাধ্যমে যথাযথভাবে স্বীকৃত হয়।

আঞ্চলিক প্রচারের লক্ষ্য ছিল গ্রাহকদের এয়ারটেলের ৪ জি নেটওয়ার্কের দেশব্যাপী কভারেজ সম্পর্কে সচেতন করা। স্থানীয় উপভাষার শক্তি স্থানীয় যুবকদের মধ্যে প্রাসঙ্গিকতা এবং সখ্যতা তৈরি করতে ব্যবহৃত হত। মুহুর্তের মার্কেটিং এর ক্ষেত্রে, এয়ারটেল ব্র্যান্ডটি যুবকদের মধ্যে একাধিক স্ক্রিন ঘটনাকে কাজে লাগিয়েছে এবং দৃঢ়তর সংযোগ, স্মার্ট প্রচার প্রচারণা পরিচালনা এবং অপচয় রোধ করতে রিয়েল-টাইম স্কোর, গেম শিডিয়ুল এবং প্লেয়ার ডেটার উপর ভিত্তি করে নির্ধারিত ডাইনামিক লক্ষ্যযুক্ত বিজ্ঞাপনগুলি ব্যবহার করেছে। এই সম্মানজনক পুরষ্কারগুলি অবশ্যই দেশের যুবকদের মধ্যে এয়ারটেলের আবেদন বাড়িয়ে তোলে।

কমওয়ার্ড অ্যাওয়ার্ডের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম প্রতি বছর সৃজনশীলতার বৃহত্তম প্রতিযোগিতা উদযাপন করে। দেশের সেরা ব্র্যান্ডগুলি এই সম্মানজনক পুরষ্কারের জন্য তাদের নিজ নিজ সৃষ্টিশীল প্রচারণার সাথে প্রতিযোগিতা করে। এই বছর বিভিন্ন বিভাগে ৪৮৭ টি ক্যাম্পেইন সহ ৫০ টিরও বেশি ব্র্যান্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছে।


এয়ারটেল সম্মানজনক ফ্লেইম এওয়ার্ড দ্বারা স্বীকৃত হয়েছে

রবি আজিয়াটা লিমিটেডের প্রারম্ভিক চিফ কমার্শিয়াল অফিসার প্রদীপ শ্রীবাস্তব এবং দেশের #১ বন্ধুদের নেটওয়ার্ক এয়ারটেলের YOLO ক্যাম্পেইনকে ২০১৮ সালে সম্মানজনক ফ্লেম অ্যাওয়ার্ড দিয়ে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছিল।

ফ্লেইম এওয়ার্ড হ'ল সর্বাধিক বিশিষ্ট পুরষ্কার প্রোগ্রাম যা গ্রামীণ বিপণন ও যোগাযোগের ক্ষেত্রে সেরা সংস্থাটিকে পুরস্কৃত করে। জনাব প্রদীপের নেতৃত্বকে কার্যকর গ্রামীণ বিপণন কৌশল এবং এয়ারটেলের YOLO প্রচারাভিযানের দেশজুড়ে যুব সম্প্রদায়ের সাথে জড়িত থাকার অনন্য পদ্ধতির বাস্তবায়ন ও পর্যবেক্ষণের জন্য এই পুরষ্কারের মাধ্যমে যথাযথভাবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছিল।

জনাব প্রদীপ কর্তৃক প্রাপ্ত শীর্ষস্থানীয় নেতৃত্বের পুরষ্কারটি তার দৃষ্টিভঙ্গি পূরণে সাংগঠনিক উত্কর্ষতার সুবিধার্থে একটি স্মার্ট গ্রামীণ বিপণন কৌশল নিযুক্ত করার ক্ষেত্রে যে অসাধারণ ব্যক্তিগত প্রতিশ্রুতি ও ডেডিকেশন প্রদর্শন করেছিলেন তা কেবল তারই প্রতিফলন। তাঁর চিন্তাশীল তদারকি এবং বুদ্ধিমান নেতৃত্ব কর্মীদের জন্য সর্বদা অনুপ্রেরণা ছিল।


সেরা পিপল ম্যানেজমেন্ট এবং সর্বাধিক উন্নত আর্থিক পারফরম্যান্সের জন্য আজিয়াটার কাছ থেকে পুরষ্কার পেয়েছে রবি

রবি মালয়েশিয়ায় অবস্থিত তার মূল সংস্থা- আজিয়াটা গ্রুপ বেরহাদের কাছ থেকে সেরা পিপল ম্যানেজমেন্ট ও সর্বাধিক উন্নত আর্থিক পারফরম্যান্স পুরষ্কার পেয়েছিল। ২০১৭ সালে এই দুটি বিভাগে সংস্থাটির পারফরম্যান্সের জন্য পুরষ্কার দেওয়া হয়েছিল।

রবি ব্যাংককে আজিয়াটা সিনিয়র লিডারশিপ সম্মেলনে এই পুরষ্কার জিতেছে। আজিয়াটার সমস্ত অপারেটিং সংস্থাগুলি- মালয়েশিয়ার "সেলকম", ইন্দোনেশিয়ায় "এক্সএল", কম্বোডিয়ায় "স্মার্ট", শ্রীলঙ্কায় "ডায়ালগ", নেপালে "এনসেল" এবং বাংলাদেশের "রবি" এই পুরষ্কারের জন্য অংশ নিয়েছিল।

আজিয়াটা গ্রুপের মূল এইচআর নীতিগুলো সারিবদ্ধকরণের সাথে সেরা এইচআর অনুশীলন, নীতি এবং প্রক্রিয়াগুলো সুনিশ্চিত করার বিষয়ে যে মনোনিবেশ করা হয়েছে তার স্বীকৃতি হিসাবে সেরা পিপল ম্যানেজমেন্ট পুরস্কার রবিকে দেওয়া হয়েছিল। রবি টানা ৬ বছর এই পুরস্কার জিতেছে। তদুপরি, রবি তার সামগ্রিক আর্থিক পারফরম্যান্সের জন্য ২০১৭ সালে সর্বাধিক উন্নত আর্থিক পারফরম্যান্স পুরষ্কার অর্জন করেছে।


রবি -টেন মিনিট স্কুল বাংলাদেশের পক্ষে প্রথম APICTA পুরস্কার জিতেছে

রবি -১০ মিনিট স্কুল ২০১৩ সালে মর্যাদাপূর্ণ এশিয়া প্যাসিফিক আইসিটি অ্যালায়েন্স (APICTA) পুরষ্কার জিতেছিল। প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের পক্ষ থেকে কোন উদ্যোগ এই পুরস্কার জিতেছে। রবি -টেন মিনিট স্কুল ই-লার্নিং বিভাগের অধীনে পুরস্কার জিতেছে। APICTA আইসিটি বিশ্বের জনপ্রিয় ‘অস্কার’ নামে পরিচিত।

চার দিনের কর্মসূচির শেষে মোট ১৭ টি বিভাগ ভিত্তিক পুরষ্কার উপস্থাপন করা হয়েছিল। সম্মাননা প্রদান করেন মাননীয় অর্থমন্ত্রী, এএমএ মুহিত। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এই সম্মাননা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এবং আইসিটি বিভাগ যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

এপিক্টা অ্যাওয়ার্ডস একটি আন্তর্জাতিক পুরষ্কার প্রোগ্রাম যা কমিউনিটির আইসিটি সচেতনতা বৃদ্ধি এবং ডিজিটাল বিভাজন একত্রীকরণে সহায়তা করা। আইসিটি ব্যবহারকে সমাজে উন্নয়নের হাতিয়ার হিসাবে প্রচারের জন্য ১৭ সদস্যের দেশের জাতীয় সংস্থা এপিক্টায় কাজ করে। প্রতিযোগিতাটি প্রতি বছর সদস্য দেশগুলির মধ্যে সংগঠিত হয়। ২০১৫ সালে বাংলাদেশ APICTA এর একটি সদস্য দেশ হয়ে ওঠে এবং প্রথম বারের মতো এই মর্যাদাপূর্ণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল বাংলাদেশ।


রবি বিশ্ব এইচআরডি কংগ্রেস থেকে বাংলাদেশের সেরা নিয়োগকারী ব্র্যান্ডের পুরষ্কার পেয়েছে

ওয়ার্ল্ড এইচআরডি কংগ্রেস রবিকে ২০১৩ সালে "বাংলাদেশ সেরা নিয়োগকারী ব্র্যান্ড পুরষ্কার" দিয়েছিল। আইসিটি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক এমপি মর্যাদাপূর্ণ সম্মাননাটি রবির পূর্ববর্তী চিফ কর্পোরেট ও পিপল অফিসার (সিসিপিও), মতিউল ইসলাম নওশাদের হাতে তুলে দেন। শহরের একটি হোটেলে পুরষ্কার প্রদানের এই অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয়। ওয়ার্ল্ড এইচআরডি কংগ্রেসের পক্ষে বিশ্ব সিএসআর দিবস ও সাসটেইনেবিলিটি প্রতিষ্ঠাতা, ডাঃ আর এল ভাটিয়াও উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সেরা নিয়োগকারী ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড প্রতিভা আকর্ষণ, বজায় রাখা এবং বিকাশের জন্য বিপণন যোগাযোগকে কার্যকরভাবে ব্যবহার করে এমন সংস্থাগুলিকে স্বীকৃতি দেয়। সিএমও এশিয়া এবং ওয়ার্ল্ড এইচআরডি কংগ্রেস আয়োজিত দক্ষিণ এশিয়া পার্টনারশিপ সামিট চলাকালীন এই পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল। ওয়ার্ল্ড এইচআরডি কংগ্রেস এইচআর পেশাদারদের একটি পেশাদার সংস্থা যারা নিয়মিতভাবে এইচআর পরিচালনায় বিবর্তিত প্রবণতাগুলি পর্যালোচনা করে লোক পরিচালনার দৃষ্টান্ত পরিবর্তন করে।


রবি- 10 মিনিট স্কুল মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে সম্মানজনক গ্লোমো পুরষ্কার ২০১৭ জিতেছে

রবি -টেন মিনিট স্কুল মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস (এমডাব্লুসি) ২০১৭-তে "কানেক্টেড লাইফ অ্যাওয়ার্ডস" বিভাগে শিক্ষা এবং শিক্ষার জন্য সেরা মোবাইল উদ্ভাবনের জন্য একটি জিএসএমএ গ্লোমো পুরস্কার জিতেছে। গ্লোমো এওয়ার্ড ২০১৭ সম্প্রতি বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবি'র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাহতাব উদ্দিন আহমেদ জিএসএমএ আয়োজিত এমডাব্লুসিটিতে রবির পক্ষে পুরস্কারটি গ্রহণ করেছিলেন।

বিচারকদের মতে, এই রবি টেন মিনিটের শিক্ষাগত উদ্যোগটি পুরস্কৃত করার পক্ষে ছিল এমনকি অন্যান্য প্রতিযোগীরাও। তারা আরো অনুভব করেছিল যে রবি -টেন মিনিট স্কুলটি একটি খুব সময়োপযোগী এবং জটিল প্রচেষ্টা যা মোবাইলের ক্ষমতাকে আরো বেশি বাড়িয়ে দিয়েছে। এই বিভাগে অন্য মনোনীত প্রার্থীরা হলেন ওরেডো স্মার্ট ক্যাম্পাসের জন্য ওরেডো মালদ্বীপ, রিন কেরিয়ার রেডি একাডেমির জন্য পিএইচডি মিডিয়া, বাটিবোট অ্যাপের জন্য স্মার্ট যোগাযোগ এবং তুরস্কেল একাডেমী কর্পোরেট এলএমএসের জন্য তুরস্কেল।

জিএসএমএর গ্লোবাল মোবাইল অ্যাওয়ার্ড বিশ্বব্যাপী মোবাইল ইকো-সিস্টেম জুড়ে সংগঠনগুলিকে শিল্প এবং বিশ্বের কাছে সর্বশেষতম এবং সেরা মোবাইল পণ্য, অ্যাপস, ডিভাইস, পরিষেবাদি এবং উদ্যোগগুলি প্রদর্শন করার সুযোগ দেয়। "কানেক্টেড লাইফ" অ্যাওয়ার্ড বিভাগটি আজ সারা বিশ্ব জুড়ে সত্যিকারের উদ্ভাবনের মূল ক্ষেত্রগুলিকে হাইলাইট করে মোবাইল এবং শিক্ষার দ্রুত রূপান্তরকে প্রতিফলিত করছে। গ্লোমো অ্যাওয়ার্ডকে অনেকেই টেলিযোগাযোগ খাতের জন্য অস্কার হিসাবে বিবেচনা করে থাকেন এই শিল্পে।


আইসিটির মাধ্যমে স্থায়ী নারী উন্নয়নের জন্য ডিজিটাল ট্রেনিং বাস প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল অক্টোবর, ২০১৬ সালে আইসিটির মাধ্যমে স্থায়ী নারী উন্নয়নে ডিজিটাল ট্রেনিং বাস প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তিন দিনের দীর্ঘ আইসিটি ইভেন্ট ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৬-এর উদ্বোধন শেষে আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি, বসুন্ধরায় এই প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রকের আইসিটি বিভাগ (এমওপিটি এবং আইটি), দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম টেলিযোগাযোগ অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেড এবং বিশ্বব্যাপী শীর্ষস্থানীয় আইসিটি সমাধান প্রদানকারী হুয়াওয়ে টেকনোলজি (বাংলাদেশ) লিমিটেড যৌথভাবে এই প্রকল্পটি কার্যকর করতে যাচ্ছে।

আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপি, মাননীয় অর্থমন্ত্রী; ইমরান আহমেদ এমপি, চেয়ারম্যান, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রনালয় (এমওপিটি এবং আইটি) সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি; জুনায়েদ আহমেদ পলক এমপি, প্রতিমন্ত্রী, আইসিটি বিভাগ; কবির বিন আনোয়ার, এ 2 আই প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক; আনিসুল হক, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র; মোহাম্মদ সাঈদ খোকন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র; শ্যাম সুন্দর সিকদার, সচিব, আইসিটি বিভাগ; মোস্তফা জব্বার, সভাপতি, বেসিস; অনুষ্ঠানে রবি আজিয়াটা লিমিটেডের ডেপুটি সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ এবং হুয়াওয়ে টেকনোলজিসের (বাংলাদেশ) লিমিটেডের সিইও ঝাও হাফু উপস্থিত ছিলেন।

প্রকল্পটি তিন (৩) বছরের মেয়াদে কার্যকর করা হবে। আধুনিক আইসিটি প্রশিক্ষণ সুবিধার সাথে পুরোপুরি সজ্জিত ছয়টি বাস বিভিন্ন সামাজিক বিধিনিষেধের কারণে বাড়িঘর/এলাকা থেকে বেরিয়ে আসাকে অসুবিধা মনে করে এমন নারীদের কাছে পৌঁছানোর জন্য বিশেষভাবে নকশা করা আইসিটি প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য মোতায়েন করা হবে। আইসিটি বিভাগ, রবি আজিয়াটা এবং হুয়াওয়ে দুটি করে বাস সরবরাহ করবে। আইসিটি বিভাগের সহযোগিতায় এই বাসগুলি রবি এবং হুয়াওয়ে রক্ষণাবেক্ষণ করবে।

তিন বছরের দীর্ঘ এই প্রকল্পের আওতায় ছয়টি বাস দেশের ৪ টি জেলা জুড়ে ২৪০,০০০ যুবক ও মেধাবী মহিলাদের প্রাথমিক আইসিটি প্রশিক্ষণের জন্য ব্যবহার করা হবে। প্রকল্পটি নারীদের মধ্যে (বিশেষত গ্রামীণ অঞ্চলে) আইসিটির মাধ্যমে উদ্যোক্তা অর্জনে ব্যাপক আগ্রহ সৃষ্টি করবে বলে আশা করা হচ্ছে। এই প্রকল্পের আওতায় গ্রামীণ অঞ্চলে রোড শোগুলি কেবলমাত্র নারীদের মধ্যেই নয়, স্কুল ও কলেজের অন্যান্য শিক্ষার্থীদের মধ্যেও আইসিটি শিক্ষা জনপ্রিয় করার জন্য পরিচালিত হবে।

এই বিশেষ উদ্দেশ্যে বাসগুলি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত, সাউন্ডপ্রুফ এবং প্রতিটি গাড়ীতে ২৫ টি ওয়ার্কস্টেশন সহ সজ্জিত করা হবে। প্রশিক্ষণ সুবিধার অবকাঠামোতে থাকবে জন প্রতি একটি ল্যাপটপ, বৃহত ফর্ম্যাট এলইডি স্ক্রিনস, সাউন্ড সিস্টেম, ওয়াই-ফাই ডেটা সুবিধা, কাস্টমাইজড প্রশিক্ষণ মডিউল, শেখার সফ্টওয়্যার এবং জেনারেটর। প্রশিক্ষণ সামগ্রী ফ্রি সরবরাহ করা হবে এবং প্রশিক্ষণ মডিউল এবং প্রশিক্ষকদের আইসিটি বিভাগ দ্বারা নিয়ন্ত্রণ ও তদারকি করা হবে।

২০২১ সালের দৃষ্টিভঙ্গির সাথে সঙ্গতি রেখে আইসিটির মাধ্যমে গ্রামীণ মহিলাদের ক্ষমতায়ন করা এটি বাংলাদেশের প্রথম উদ্যোগ। ডিজিটাল বাংলাদেশের দিকে আমাদের যাত্রা সহজ করার জন্য এই প্রকল্পটি তরুণ পল্লী মহিলাদের অন্তর্ভুক্ত করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। দীর্ঘমেয়াদে, এই প্রকল্পটি প্রতিভাবান নারীদের একটি শক্তিশালী নেটওয়ার্ক তৈরি করতে সহায়তা করবে, যারা আইসিটির মাধ্যমে তাদের পুরুষ সহযোগীদের মতোই অবদান রাখতে পারবে।


রবি- টেন মিনিট স্কুল ব্র্যাক মন্থান ডিজিটাল ইনোভেশন পুরস্কার ২০১৬ জিতেছে

মানসম্পন্ন শিক্ষায় অ্যাক্সেসের জন্য অর্থনৈতিক ও ভৌগলিক প্রতিবন্ধকতা দূর করতে অসামান্য অবদানের জন্য রবি -টেন মিনিট স্কুল ব্র্যাক মান্থান ডিজিটাল ইনোভেশন পুরস্কার ২০১৬ জিতেছিল। রবির কর্পোরেট দায়বদ্ধতার (সিআর) উদ্যোগের অংশ হিসেবে, অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম “টেন মিনিট স্কুল" সমর্থন করছে সংস্থাটি।

রবি- টেন মিনিট স্কুল ই-লার্নিং বিভাগে পুরস্কার জিতেছে এবং মাননীয় আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের কাছ থেকে প্রশংসা পেয়েছে। পূর্বে, অগ্রণী অনলাইন শিক্ষা প্ল্যাটফর্ম গ্লোবাল এন্টারপ্রেনারশিপ সামিট এবং স্লুশ গ্লোবাল এক্সিলারেটর প্রোগ্রামে আন্তর্জাতিক পুরষ্কার জিতে নেয়।


সামাজিকভাবে নিবেদিত ব্র্যান্ডগুলির মধ্যে রবি বিশ্বব্যাপী শীর্ষে রয়েছে

রবি ২০১৬ সালের প্রথম কোয়ার্টারে (জানুয়ারি-মার্চ) বিশ্বব্যাপী #১ সামাজিকভাবে নিবেদিত ব্র্যান্ড উপাধিতে ভূষিত হয়েছিল। স্বীকৃতিটি এসেছে 'সোসালব্যাকারস' - একটি বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত অনলাইন অ্যানালিটিক্স প্রকাশনা সংস্থা থেকে। এর আগে, রবি ২০১৫ সালের তৃতীয় কোয়ার্টারে (জুলাই-সেপ্টেম্বরের) একই প্রত্যাশিত অবস্থান অর্জন করেছিল। এই জাতীয় বৈশ্বিক স্বীকৃতি এই সত্যতাই প্রমাণ করে যে রবি দেশের মোবাইল টেলিযোগাযোগ শিল্পকে ডিজিটালাইজেশনে নেতৃত্ব দিচ্ছে।

তিনটি মানদণ্ডের বিপরীতে কোন কোম্পানির স্কোরের উপর ভিত্তি করে র‍্যাংকিংটি করা হয়; তিনটি ক্রাইটেরিয়া হল, সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে এর ফ্যান ও ফলোয়ারদের সংখ্যা , প্রতিক্রিয়া জানানোর সময় এবং রেসপন্স রেট।

সোশ্যালব্যাকার্সের বিশ্লেষণ অনুসারে, রবি ১১ মিলিয়নেরও বেশি ফ্যান, ফলোয়ার নিয়ে তালিকার শীর্ষে রয়েছে, প্রতিক্রিয়া জানানোর গড় সময় ৬ মিনিট এবং এই বছরের প্রথম প্রান্তিকে ৯৯.৭৫% রেসপন্স রেট। রবি দ্বিতীয় কোয়ার্টারে ১১ মিলিয়নেরও বেশি ফ্যান নিয়ে গড়ে ৫ মিনিটের রেসপন্স টাইম এবং ৯৯.৮৪% এর দারুণ রেসপন্স রেট এর সাথে আরো উন্নতি করে। এর মানে রবির সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে গ্রাহকদের করা প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর তারা যতটা সম্ভব দ্রুত সময়ের মধ্যে দিয়েছেন।

গ্রাহককেন্দ্রিক কোম্পানি হিসাবে, রবি তার গ্রাহক ও ফ্যানদের পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত রিসোর্সের মাধ্যমে সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ২৪/৭ সঠিক, রিয়েল-টাইম এবং আকর্ষণীয় প্রতিক্রিয়া সরবরাহ করার চেষ্টা করে। অনলাইন রেসপন্স রেট এর নিয়মিত বেঞ্চমার্কিং এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার, টুলস্‌ ও টেকনিক রবিকে সোশ্যালব্যাকার্সের বিশ্বব্যাপী তালিকায় ধারাবাহিকভাবে শীর্ষে স্থান দিয়েছে।